ঘাতক বাস চালকের জবানবন্দীর অন্তরালে


বাস চালকের জবানবন্দী পড়ে আমি আবেগে অভিভূত হয়ে গেলাম। আমার চোখ দিয়ে নিজের অজান্তেই ঝর ঝর করে পানি পড়তে লাগল। মানবতা এখনও বেঁচে আছে, হারিয়ে যায়নি!

ভেবে দেখেন, সবগুলো পত্রিকায় গত এক সপ্তাহে এসেছে, এটা ছিল বেপরোয়া ড্রাইভিংয়ের কারণে দুর্ঘটনা। চালক ইচ্ছে করে বাচ্চাদের উপর গাড়ি উঠিয়ে দিয়ে তাদেরকে খুন করেছে, এটা কেউ দাবি করেনি। চালক যদি নিজ মুখে স্বীকার না করত, তাহলে সেটা প্রমাণ করারও কোনো উপায় ছিল না। আর এরকম ক্ষেত্রে সাধারণত কেউ স্বীকারও করে না। ঠিক এ ধরনের কেসে কয়টা এরকম স্বীকারোক্তি শুনেছেন?

এখানেই এই চালকের মহানুভবতা, উদারতা! সে যদি ঠিক এইভাবে হত্যাকান্ডের কথা স্বীকার না করত, তাহলে সংশোধিত আইনেও সে ৫ বছর জেল খেটে বেরিয়ে যেতে পারত। কিন্তু তাহলে ছাত্রসমাজের মধ্যে ক্ষোভ রয়ে যেত। কিন্তু দেশের বৃহত্তর স্বার্থে সে নিজের স্বার্থকে বিসর্জন দিয়েছে।

এখন বেপরোয়া গাড়ি চালানোর শাস্তি প্রায় আগের মতো থাকলেও এই চালক ইচ্ছাকৃত হত্যাকান্ডের কথা স্বীকার করায় খুনের মামলায় তার যাবজ্জীবন কারাদন্ড হয়ে যাবে। ছাত্ররা অবশ্য এতো আইনের মারপ্যাঁচ নিয়ে মাথা ঘামাবে না। তারা খুনী চালকের শাস্তি দেখেই সন্তুষ্ট হয়ে যাবে, তাদের অবদমিত ক্ষোভ হ্রাস পাবে, অতঃপর সবাই সুখে-শান্তিতে বসবাস করতে থাকবে।

ইচ্ছাকৃত হত্যাকান্ডের স্বীকৃতি দিয়ে জাবালে নূরের চালক দেশের স্বার্থে নিজের যাবজ্জীবন শাস্তিকে বরণ করে নিয়েছে। আহ্‌! এই দেশ নিয়ে সেজন্যই আমি কখনও আশা হারাই না। পাপকে ঘৃণা করতে হয়, পাপীকে না। তাই দোয়া করি, আল্লাহ এই চালকের সকল অপরাধ ক্ষমা করে তাকে কবুল করে নিক।#আমিন্নাবলেযাবেন্না

পুনশ্চ ১: এই স্বীকারোক্তি নিয়ে এখন অনেকে অনেক ধরনের গুজব ছড়ানোর চেষ্টা করবে, #গুজবেকান্দিবেন্না

পুনশ্চ ২: চালকের এই মহানুভবতা ঠিক আমার মাথায় আসেনি, এটা অন্য একজনে ইনবক্সে জানিয়েছেন, আমি তার ভাবনাটাই সাজিয়ে লিখলাম। আমার মাথায় সাধারণত গোসল করতেই এ ধরনের আইডিয়া আসে। এই নিউজ দেখার পর এখনও গোসল করার টাইম পাইনি 

প্রথম লেখা: ৮ আগস্ট ২০১৮, ফেসবুকে

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s