Tag Archives: লিবিয়ার জীবন

আইএসের শহরে জীবন যাপন

সিরতে আইএস এর সাথে মিসরাতী মিলিশিয়াদের সংঘর্ষ শুরু হয়ে গেছে। সকালে বুগ্রেইনে (সিরতের ১৩৫ কিমি পশ্চিমে) গেছিলাম। বিকালে ফেরার সময় সিরতের পঞ্চাশ কিমি দূরের খামসিনের চেক পয়েন্ট থেকে ফিরিয়ে দিয়েছে। সিরতে ঢুকতে দেয়নি। শুধু আমাদেরকে না, কাউকেই সিরতে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। চেকপয়েন্টের মিলিশিয়ারা বলছে, সিরতে ঢুকা তো যাবেই না, বরং যারা ভেতরে আছে, তাদেরকেও সিরত থেকে বেরিয়ে যেতে হবে।

Continue reading আইএসের শহরে জীবন যাপন

আমার ভূতের ভয়

এমনিতে আমি ভূতে বিশ্বাস করি না। কিন্তু ভূতকে প্রচন্ডরকম ভয় পাই ঠিকই। একা হলে তো কথাই নাই, ঘরভর্তি মানুষ থাকলেও রাতের বেলা বাথরুমে যাওয়ার সময় দুনিয়ার যত্তো হরর মুভি, ভূতের গল্প আর ভয়ের স্বপ্ন, সবকিছু একসাথে মনে পড়ে যায়। বাথরুম থেকে ফিরে এসেও শান্তিমতো ঘুমাতে পারি না। দেয়ালের সাথে পিঠ ঘেঁষে ঘুমাতে হয়, উল্টাদিক ফিরলেই মনে হয় পিছনে “কিছু” একটা আছে! এই বুঝি কিছু একটা নড়ে উঠল!

Continue reading আমার ভূতের ভয়

দিলাম গুলি করে!

আমাদের ছোটকালে দেখতাম ভাইবোনদের মধ্যে ঝগড়াঝাঁটি হলে একজন আরেকজনকে ধমক দিত, আব্বুকে বলে দিব। অথবা বড়জোর বলত, থাপড়িয়ে গালের দাঁত সব ফেলে দিব। কিন্তু এই যুগে সব কিছুরই পরিবর্তন ঘটছে।

গতকাল এক লিবিয়ান ফ্রেন্ডের বাসার সামনে বসে বসে আড্ডা মারছি, এমন সময় দেখি সামনে দিয়ে দুই ভাই হেঁটে যাচ্ছে। বড়টার বয়স বারো-তেরো আর ছোটটার বয়স পাঁচ-ছয় বছর হবে। ছোটটা কিছু একটা নিয়ে ঘ্যানঘ্যান করছিল। তো বড়টা বলল, “ওস্‌কত্! ওস্‌কত্! ক্যান মা তোস্‌কত্‌শ, তাউয়া আন্‌-ফার্‌রাগ ফিক!” অর্থাত্! চুপ! চুপ! চুপ না করলে দিব গুলি করে 🙂 শুনে পিচ্চিটা ভয়ে একেবারে ভ্যাঁ করেই কেঁদে দিল!

প্রথম লেখা: ৭ ডিসেম্বর, ২০১৪, ফেসবুকে

ইনশাআল্লাহ্ সমাচার

আমার দৈনন্দিন জীবনের অভিজ্ঞতা থেকে একটু ভাষা বিষয়ক প্যাচাল পাড়ি। একটা প্রশ্ন দিয়েই শুরু করি। মনে করুন আপনি কাউকে তার পরীক্ষার ফলাফল জিজ্ঞেস করলেন, “পাশ করেছ?” উত্তরে সে যদি বলে “ইনশাআল্লাহ্‌”, তাহলে আপনি কি বুঝবেন? সে কি পাশ করেছে, নাকি ভবিষ্যতে পাশ করার আশা আছে?

Continue reading ইনশাআল্লাহ্ সমাচার